চুলবুলের দাবাং থ্রি

সোমবার ডিসেম্বর ২৩, ২০১৯ ১০:১৪

পাতাটি ১৭৩ বার পড়া হয়েছে।

শুক্রবার ভারতের তিন হাজার সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে সালমান খান অভিনীত বহুল প্রতিক্ষীত সিনেমা ‘দাবাং থ্রি’। হিন্দি ভাষার পাশাপাশি কন্নড়, তামিল ও তেলুগুতেও ডাবিং করা হয়েছে ছবিটি। মুক্তির আগেই নানা কারণে আলোচনায় ছিল ‘দাবাং থ্রি’।

সাড়া ফেলেছিল সিনেমার টিজার, ট্রেলার, গান। সব মিলিয়ে ছবিটির ভালো ব্যবসা হবে বলেই মনে করেছিলেন সংশ্লিষ্টরা। ‘দাবাং থ্রি’তে সালমানের বিপরীতে অভিনয় করছেন সোনাক্ষী সিনহা। এই ছবিতে আরও রয়েছেন সোনু সুদ ও প্রমোদ খান্না।

এর আগে ‘দাবাং’-এর দুই ছবিতেই পুলিশ অফিসার চুলবুল পাণ্ডের নানা কাণ্ড-কারখানা দেখেছেন সিনেদর্শক। তবে চুলবুল পাণ্ডের এই দৌর্দণ্ডপ্রতাপ পুলিশ অফিসার হযে ওঠার নেপথ্যের কাহিনিটা দেখানো হয়েছে এই পর্বে।

ছবিতে দেখ যায়, চুলবুলের এই চুলবুল হয়ে ওঠার এই লম্বা গল্পটি আগের ছবিগুলোর মতোই চর্বিতচর্বণ। এই ছবি দর্শককে নিয়ে যাবে সেই কোনো কালে। দাবাং থ্রি হলো সেই জাতীয় ছবি যেখানে নায়ক যদি নায়িকার রক্ষাকর্তা হিসেবে নিজেকে ঘোষণা করে, তবে সেটাতে আপত্তির কিছু নেই।

এমনকী ভিলেন বাল্লি সিংয়ের (সুদীপ) নিয়তিও বাঁধাধরা- তাকে একপাল পালোয়ান দেয়া হবে, একটা অবৈধ খনি দেয়া হবে, সে সাইড-বিজনেস হিসেবে বেশ্যাদের নেটওয়ার্ক চালাবে আর তাকে দেয়া হবে কিছু সংলাপ!

বাকি ছবিটা যেকোনো ‘ভাই’ ধাঁচের ছবির মতোই। শুধু ‘দাবাং’-এর আগের দুটি ছবিতে যে ‘মাস্তি’টা ছিল তা অনুপস্থিত। গোটা ছবিজুড়েই পরিচালক প্রভুদেবার স্বকীয়তা রয়েছে। সে মারামারির দৃশ্যে হোক বা অন্য যেকোনো দৃশ্য।

দেখ যায়, বাণিজ্যিক ছবির সবচেয়ে নিম্নমানের যা যা বৈশিষ্ট্য থাকে তার সবকটিই দেখা গেছে। বাতকর্ম নিয়ে খিল্লি, ক্যামেরার চোখ বারবার মেয়েদের বুকের ওপর আটকে থাকা, শিশুসুলভ জোকস, বর্ণবৈষম্য ইত্যাদি। এক জায়গায় দেখা যায়, তিন পুলিশ কর্মকর্তা মূত্রত্যাগের সময়ে তা নিয়ে খেলা করছে।

ছাপা শাড়ি আর দড়িসর্বস্ব চোলি পরে, বেশ ঢং দেখিয়ে চুলবুলকে একবার বলে ওঠে রাজ্জো (সোনাক্ষী), আমি ওই সত্তর-আশি সালের মতো কথা মোটেই বলব না।

এর আগে, ২০১০ সালে অভিনব কাশ্যপের পরিচালনায় মুক্তি পেয়েছিল দাবাং, এরপর দাবাং-২-এর পরিচালক হিসেবে দেখা গেছে আরবাজ খানকে। আর এই ছবিটি পরিচালনা করেছেন প্রভুদেবা।

বক্স অফিস বিশ্লেষকরা ধারণা করছেন, ‘দাবাং থ্রি’ মুক্তির দিনেই আয় করবে ২৫ থেকে ৩০ কোটি রুপি। সালমান খানের এর আগের মুক্তি পাওয়া ‘ভারত’ ছবিটি মুক্তির দিন ৪২ কোটি রুপি আয় করেছিল।

মতামত জানান