পিরিয়ডের সময় ভুলেও টিস্যু ব্যবহার করবেন না

রবিবার জানুয়ারি ১৯, ২০২০ ১০:৪০

১৪৩ views

ছোট্ট একটা ভুল সারাজীবনের কান্না।

আমার হলের এক বড় আপু অন্য সব মেয়ে দের মতই পিরিয়ড হলে প্যাডের সাথে টিস্যু ইউজ করতো। পিরিয়ড সুস্থ হয়ে যাওয়ার পর থেকেই উনার জরায়ু তে হাল্কা ব্যাথা হওয়া শুরু করলো এবং জরায়ু একটু একটু করে ফোলা শুরু করলো।

প্রথমে আপু তেমন গুরুত্ব দেয়নি পরে যখন ব্যাথা ব্যাথা বেড়ে গেলো তখন ডাক্তারের কাছে গেলে ডাক্তার কিছু টেস্ট করায় এবং শিউর হয় যে তার জরায়ুর ভেতর টিস্যুর কিছু অংশ ঢুকে গেছে। আর সেইটা থেকে তার ইনফেকশন হয়।

কিছু দিনের মধেই তার জরায়ু ফুলতে ফুলতে বড় সাইজের বলের আকার হওয়া শুরু করলো। অবস্থা এমন যে দেখে বুঝার কোনো উপায়ই নেই যে এটা একটা জরায়ু। বড় একটা মাংসপিন্ডের বল লাগতো দেখতে। জরুরি অবস্থায় আপু হসপিটালে ভরতি হয়। সম্পুর্ণ ২ মাস উনি বিছানায় শুয়ে নড়তে পারতেন না। উনার শরীর থেকে প্রস্রাব মল সব নেয়া হতো পাইপের মাধ্যমে। তারপর অনেক সময় পরে উনি সুস্থ হয়। সুস্থ হওয়ার পরও ডাক্তার তাকে ৬ মাস শারীরিক সম্পর্ক না করার জন্য এডভাইজ করেছিলো।

খেয়াল করলে দেখবেন টিস্যুতে যখন সামান্য পানি পড়ে টিস্যুর উপর থেকে সাদা সাদা চামড়ার মতন উঠে।আর পিরিয়ডের সময় ভেজাই থাকে টিস্যুটা! আর আমরা যারা হাইকমোডের হ্যান্ড শাওয়ার ইউজ করি পানির ফ্লো টা কিন্তু সরাসরি জরায়ুর ভিতরে অনেক চাপ নিয়ে ঢুকে। টিস্যুর যদি সামান্য অংশও জরায়ুর আশেপাশে থাকে সেটা পানির সাথে ভিতরে ঢুকা কিন্তু অস্বাভাবিক কিছু না। তাই ভেবে দেখেন কতটা বিপজ্জনক হতে পারে আপনার টিস্যু ব্যবহার!

(Visited 1 times, 1 visits today)
মতামত জানান