ভালোবাসার ছোটগল্প

বৃহস্পতিবার এপ্রিল ৩০, ২০২০ ০১:৩১

১০৩ views

আজ সকাল থেকে দেশের আকাশে সূর্য্য ফকফক করছে। কিন্তু আমার ঘর মেঘাচ্ছন্ন। সূত্রপাতটা খুব সম্ভবত সকাল ৮টার দিকে। সাহরি এবং ফজর নামাজ শেষে আমার রুটিন ঘুম শেষ হওয়ার কথা সকাল ৯টায়। নির্ধারিত সময়ের এক ঘন্টা আগে পিঠে প্রচন্ড এক ধাক্কা অনুভূত হলো এবং কানে ঘষেটি বেগমের ঘ্যানর ঘ্যানর আওয়াজ ভেসে আসলো। হকচকিয়ে উঠে বললাম কোন দুর্ঘটনা ঘটেনিতো!

বললো দুর্ঘটনা ঘটিয়ে এখন আবার ন্যাকামো করছেন কেন?
আমি হতভম্ব হয়ে ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে রইলাম।
বলেই যাচ্ছে – আমার কপালটাই খারাপ, কিসের কমতি রেখেছি? অন্য মহিলারা স্বামীকে যতোটা কেয়ার করে আমি তার চেয়ে বরং একটু বেশীই করি? তার ফল কি এটা? আমার সাথে প্রতারণা?

কথাগুলো শুনে আমার বুক ধড়পড় করছে। দু’বছর আগে এক্স এর সাথে মেসেঞ্জারে সংযোগ হয়েছিলো অল্প কিছুদিনের জন্য। তারপর থেকে জানা মতে কোন মেয়ের প্রোফাইলে অপ্রয়োজনে ঘুরাফেরাও করিনা, থাকতো চ্যাট করবো। মোবাইলটা হাতের নাগালেই। কিজানি, কোন শয়তানি আমারে মেসেজে উল্টাপাল্টা কি লিখেছে, যার কারণে যত্তসব সন্দেহ! গলা খাকরিয়ে ঘুমন্ত কণ্ঠটাকে স্বাভাবিক করে বললাম এতো কাহিনী রেখে বলো, কি হইছে?

আমার দিকে চোখ বড় বড় করে তাকিয়ে বললো-কি হয়নি? হ্যা কি হয়নি? একটু আগে কি দেখেছি?
বললাম কোথায় কি দেখেছো?
বললো-কোথায় আবার স্বপ্নে আর কি?
আমি হাসি চাপিয়ে গম্ভীর কণ্ঠে গুরুত্বের সাথে জানতে চাইলাম কি দেখেছো?
বললো- মহা ধুমধামে আপনি আরেকটা বিয়ে করেছেন।

অবশেষে আর না হেসে পারলাম না। হাহাহা, হোহোহো বললাম মাশা আল্লাহ। রোজা মুখে, না হয় মিষ্টিমুখ করাতাম।
এ বাক্যটাই কাল হলো।
অনর্গল ঘ্যান ঘ্যান করেই চলছে যেন আষাঢ়ে বিলে ব্যাঙ ডাকছে। এরকম ক্ষেত্রে যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব গৃহত্যাগ করলেই আমি বাঁচি। সে সূত্রধরে কোন রকমে মুখে পানি ছিঁটিয়ে মোটর সাইকেলটা দ্রুত বের করে চড়ে বসলাম।

পেছন থেকে চলছে- নতুনটারে নিয়ে আইসেন, আমি আমার বাপের বাড়িতে চলে যাবো।

সারাদিনে কয়েকবার ফোন করে করে নতুনটারে এনে রান্না করতে বলেন, নতুনটারে এনে এই করতে বলেন, সেই করতে বলেন আমি আর পারবোনা বলে বলে শুধু বিরক্ত করে চলছে।

রাগ থামার একটা নির্দিষ্ট সময় অতিক্রান্ত হওয়ার পর বুঝিয়ে বললে আবার অনুতাপও করে। সে মোতাবেক ইফতারির পর বললাম আজ রাতে যদি স্বপ্ন দেখো আমি ইহলোক ত্যাগ করিয়াছি, তাহলে কি কালকে আমার জন্য বুক ভাসিয়ে কাঁদবে? মুহুর্তেই বুকে এসে পড়লো…

{গল্পটা আমার জীবনের সর্বশেষ ক্রাশ এর}

(Visited 1 times, 1 visits today)
মতামত জানান