মতলব উত্তরে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচীর মৌলিক প্রশিক্ষণ

কিশোরগঞ্জ

মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ বলেছেন, দেশের উন্নয়নকাজে প্রত্যেককেই অংশীদার হতে হবে৷ বৃহস্পতিবার (ডিসেম্বর ৭) মতলব উত্তর উপজেলায় ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির (৭ম পর্ব)-এর মৌলিক প্রশিক্ষণ প্রদান কালে তিনি এই কথা বলেন৷

বৃহস্পতিবার উপজেলা পরিষদ মায়া বীরবিক্রম অডিটোরিয়ামে উপজেলা প্রশাসন ও যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের আয়োজনে ২ বছর মেয়াদী নির্বাচিত যুবদের তিন মাস ব্যাপী মৌলিক প্রশিক্ষন কর্মসূচিতে তিনি প্রশিক্ষন প্রদান করেন।

মনজুর আহমদ প্রশিক্ষনার্থীদের বলেন- মৌলিক প্রশিক্ষণকে কাজে লাগিয়ে নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে সফলতার মাধ্যমে দেশের উন্নয়নে অংশীদার হতে হবে। বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত কর্মসূচী দরিদ্রতা দূরীকরণ ও শিক্ষিত যুবদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি এ দেশের ইতিহাসে বিরল।

আপনারা প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে দুই বছর কাজ করার পর এ প্রশিক্ষণকে কাজে লাগিয়ে দেশের উন্নয়নে কাজ করবেন। তাহলে এ কর্মসূচীর স্বার্থকতা হবে। এ সরকার যুব সমাজের বেকারত্ব দূর করে আত্মনির্ভরশীল ও কর্মমুখী করার জন্য কাজ করছেন। এ কর্মসূচীর লক্ষ্যে সরকারের সর্বাধিক অগ্রাধিকারস্থ ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচীর মাধ্যমে উপজেলার বেকার যুবক ও যুব মহিলাদের আত্মকর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, কর্মের অবস্থানের সৃষ্টি করতে যুবকদের বিকল্প নেই। অদম্য উৎসাহকে কাজে লাগিয়ে যুবকরাই প্রশিক্ষনের মাধ্যমে আত্মকর্মী উন্নয়নের মূলভিত্তি গড়ে প্রত্যাশা পূরণ করা সম্ভব। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বার্থকতা এখানেই যে, তিনি এই কর্মসূচির মাধ্যমে একসাথে এতজন বেকার যুবদের বেকার ভাতার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। এ জন্য আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা জানাই। তিনি সবাইকে সঠিক ভাবে প্রশিক্ষন নিয়ে যার যার কাজকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বলেছেন এবং সত্যকে সত্য বলার সৎ সাহস রাখতে বলেছেন, এতে নিজেরা এবং দেশটা এগিয়ে যাবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা তারিক মাহমুদ হোসেন, ক্রেডিট সুপার ভাইজার মেজবাহ উদ্দিন, ওসমান গণি, শহিদুল ইসলাম।
মনজুর আহমদ বলেছেন, বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে সরকার বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করছে। যুবসমাজের জন্য নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে যুবকদের উদ্বুদ্ধকরণ, প্রশিক্ষণদান, প্রশিক্ষণোত্তর আত্মকর্মসংস্থান প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে স্বাবলম্বীকরণ, যুবঋণ প্রদান এবং দারিদ্র বিমোচন কর্মসূচি চালু রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ নিয়ে যুবকরা দেশে-বিদেশে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নিজেদের নিযুক্ত করা হবে। যুবকদের জন্য পরিচালিত আরও কর্মসূচি তৈরির লক্ষ্যেই সরকার অগ্রাধিকারমূলক ‘ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচি’ চালু করেছে।

Tagged

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *